চুটিয়ে প্রেম করছে স্কুলের ছেলে-মেয়েরা, বিরক্ত হয়ে প্রেমিক-প্রেমিকাদের নাম দিয়ে পোস্টার লাগালো স্থানীয়রা!

0

প্রেম-ভালোবাসা চিরন্তন। প্রত্যেক মানুষের জীবনে প্রেম-ভালোবাসা একবার হলেও ধরা দেয়। প্রেম যেন এক অতিথির মত কখনো জীবনে আসে ফুল-ডোরে বাঁধে, কখনো আবার অশ্র ঝরিয়ে চলে যায় সে বুঝার উপায় নেই। প্রেম-ভালোবাসা মানে না কোন বাধা মানে না কোন বয়স।

তবুও বাড়িতে বাব-মার শাসনে থাকার কারণে অনেক ছেলে মেয়েই ভয়েই থাকেন। বাড়িতে তারা একেবারেই সাধু। বাড়ি থেকে স্কুল-কলেজে গেলেই তারা যেন স্বাধীন হয়ে যান। সেখানে পড়া-লেখার বিষয়ে শাসন করার জন্য শিক্ষকরা থাকলেও প্রেম বিষয়ে শাসন করার কেউ নেই। অনেকেই আবার স্কুল ফাঁকি দিয়েও প্রেমে মত্ত থাকেন।

কেউ কেউ আবার স্কুল থেকে পালিয়ে সিনেমা হলে গিয়ে চুটিয়ে প্রেম করেন। আর এমনই এক প্রেমলীলার খবর বেরিয়ে এসেছে দক্ষিণ ২৪ পরগণার বাসন্তী থানার সোনাখালী উচ্চমাধ্যমিক বিদ্যালয়ের নামে।

ওই বিদ্যালয়ের প্রেমিক-প্রেমিকাদের নামের তালিকা পোস্টারে পোস্টারে ছড়িয়ে দেয়া হয়েছে। স্কুলের ভেতরে ঢুকলেই চোখে পড়বে দেওয়ালে দেওয়ালে লাগানো হয়েছে এমন পোস্টার।

পোস্টারের উপরে বড় বড় অক্ষরে লেখা ‌’সোনাখালী হাইস্কুলের বর্তমান প্রেমের তালিকা’। এরপর সারিবদ্ধভাবে স্কুলের ছাত্রছাত্রীর নাম, আর নামের পাশে কে কোন শ্রেণিতে পড়ছে তা লেখা।

ভারতীয় গণমাধ্যমের খবর, স্কুলের ছেলে-মেয়েরা চুটিয়ে প্রেম করছে। তাদের পড়ালেখা আপাতত লাটে উঠেছে। তাতেই বিরক্ত হয়ে ‘পি সি এস’ (পিপলস কমিটি অফ সোনাখালি) নামে স্থানীয় মানুষজন এই পোস্টার লাগিয়েছেন।

এখানেই শেষ নয়, এমন তালিকা ভবিষ্যতে আরও প্রকাশ করা হবে বলে জানিয়েছে তালিকা প্রস্তুতকারীরা। তাদের ধারণা, প্রেমিক-প্রেমিকাদের নাম প্রকাশ্যে এলে তারা হয় তো এসব বাদ দিয়ে পড়ালেখায় মনোযোগ দেবে।

তালিকায় দেখা যায়, একজন একইসঙ্গে দুই-তিনজনের সঙ্গে প্রেম করছেন। যা নিয়ে চাঞ্চল্য পড়ে গেছে স্কুলে। তবে পোস্টারে নাম থাকা এরকমই এক একাদশ শ্রেণির ছাত্রের দাবি, তাদের বদনাম করতে কিছু অসৎ মানুষ এমন কাজ করেছে। বাড়িতে জানতে পারলে তাকে মেরেই ফেলবে।

Share.

Leave A Reply