সন্তানের নামের কারণে আখিরাতে হিসাব হবে কি?

0

প্রশ্ন : আমরা যে আধুনিক যুগে ছেলেমেয়েদের নাম রাখি, ওই নামের অর্থের ওপর কি আখিরাতে কোনো হিসাব আছে?

উত্তর : নিজের সন্তানের নামকরণ করবেন। মানুষ তো গরু-ছাগলের নামকরণ করার সময়ও একটা অর্থ দেখে। এ ছাড়া বিভিন্ন ধরনের প্রতিষ্ঠানের নামকরণের সময়ও চিন্তা করে যে অর্থটা যথাযথ হচ্ছে কি না। আর একটি সন্তানের যে নামকরণ করা হবে, সে সন্তান কেয়ামত পর্যন্ত এই পরিচয় বহন করবে।

বরং আল্লাহর রাসূল (সা.) আবু দাউদ হাদিসের মধ্যে বলেছেন, ‘কেয়ামতের দিন তাদেরকে তাদের নাম এবং পিতার নাম ধরে ডাকা হবে।’

এমন একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে, অর্থাৎ সন্তানের নামের ব্যাপারে আমরা অবহেলা করব, এটা আসলে গ্রহণযোগ্য নয়। বরং এ দায়িত্বটুকু যদি কেউ পালন না করেন, তাদের সম্পর্কে শায়খুল ইসলাম ইবনে কাইয়ুম (রা.) স্পষ্ট করে বলেছন, ‘সন্তানের সুন্দর একটি নামকরণ করা এটাও মূলত পিতা-মাতার ওপর সন্তানের যে হক রয়েছে, তার মধ্যে অন্যতম একটি হক। এই হকটুকু যদি আদায় না করেন, তাহলে তিনি গুনাহগার হবেন এবং এর জন্য তিনি দায়িত্ব বহন করবেন।

তবে তিনি যে কথাটি বলেছেন, তাতে আমি খুব আশ্চর্যবোধ করছি, কারণ আধুনিকতার মধ্যে এ ধরনের কোনো কথাই নেই। বরং আমরা এটাকে মনে করছি আধুনিক। আধুনিকতা কী জিনিস, সেটা মূলত আরকেটি বিশ্লেষণের বিষয়। আরেকটু জানার বিষয় এখানে রয়েছে। আধুনিকতার অর্থ এই নয় যে সন্তানের নামকে আপনি বিকৃত করে ফেলবেন।

এটা অনেকটা সাংস্কৃতিক আগ্রাসন। যাঁরা জ্ঞানদীপ্ত নন, ঐতিহ্য সচেতন নন, তাঁরা অনেক সময় এমন নাম রাখেন যেটার অর্থ উপলব্ধি করতে গেলে লজ্জা পেতে হয়।

Share.

Leave A Reply