সেলফি জ্বর, বন্ধুকে বাঁচাতে গেল ৫ জনের প্রাণ

0

সেলফি তুলতে গিয়ে প্রাণ দেওয়ার নজির কম নেই। সম্প্রতি বাংলাদেশের তারকা ক্রিকেটার সাকিব আল হাসানকে নামিয়ে ফেরার পথে হেলিকপ্টারে সেলফি তুলতে গিয়ে প্রাণ হারান শাহ আলম নামের বিজ্ঞাপনী সংস্থার এক কর্মী। হেলিকপ্টারটিও বিধ্বস্ত হলে সঙ্গে থাকা অপর ৪ জন আহত হন। বিষয়টি কোনো সচেতন মানুষই মেনে নিতে পারছেন না। আর সেলফির কারণে একজনের ভুলে ৫ জনের প্রাণ দেওয়াটা মেনে নেওয়া সত্যিই কঠিন। ভারতের তেলেঙ্গানা রাজ্যে ঘটেছে এমনই মর্মান্তিক দুর্ঘটনা।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি জানায়, শনিবার তেলেঙ্গানা রাজ্যের ওয়ার‌্যাঙ্গাল জেলার ধর্মসাগর হ্রদে ৫ বন্ধুকে নিয়ে বেড়াতে গিয়েছিলেন রামিয়া প্রাতিউষা। মুহূর্তগুলো স্মরণীয় করে রাখতে একের পর এক সেলফি তুলছিলেন তিনি। একসময় রামিয়া দুর্ঘটনাবশত পা পিছলে পানিতে পড়ে যান।

বন্ধুকে পানিতে পড়ে যেতে দেখে উদ্ধারে এগিয়ে আসেন বাকি বন্ধুরা। তবে উদ্ধার করতে গিয়ে উল্টো প্রাণ হারান প্রত্যেকেই। তবে বন্ধুরা মারা গেলেও প্রাণে বেঁচে যান রামিয়া প্রাতিউষা। কোনো রকমে তীরে ফিরতে সক্ষম হন তিনি।

পুলিশ জানিয়েছে, রামিয়াসহ মৃতদের সবাই ভাগদেবী ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজের ৩য় বর্ষের শিক্ষার্থী। তারা শনিবার ধর্মসাগর হ্রদে বেড়াতে যান।


পুলিশ জানায়, মৃত শিক্ষার্থীদের মধ্যে দুইজন নারী ও অপর তিনজন পুরুষ। এদের সবার বয়স ১৮ বছরের মধ্যে। কানপুরের পুলিশ সুপার শল্‌ভ মাথুর গণমাধ্যমকে জানান, দুর্ঘটনার সময় প্রচুর বৃষ্টি হচ্ছিল। গভীর নদীতে স্রোতও ছিল প্রচণ্ড। ফলে প্রত্যেকেই পানিতে তলিয়ে যায়।

দুর্ঘটনার পরই ডুবুরী নামানো হয়। প্রায় দু’ঘণ্টার তল্লাশি শেষে সবার মরদেহ উদ্ধার করেন ডুবুরীরা।

Share.

Leave A Reply