মিষ্টিকুমড়ার প্যাক ত্বকের জন্য জরুরি কেন?

0

বাজারে আজকাল অনেক ধরনের ফেসপ্যাক কিনতে পাওয়া যায়। নিম, হলুদ, চন্দন, মধু, মুলতানি মাটিসহ আরো অনেক উপাদানের বোতলজাতকৃত প্যাক। কিন্তু ঘরে তৈরি প্রাকৃতিক উপাদানের ফেসপ্যাক হলো সবচেয়ে উপকারী এবং কার্যকর। রূপচর্চায় অনেক উপাদানের নাম শুনলেও মিষ্টিকুমড়ার কথা কি কেউ শুনেছেন?

অবাক হচ্ছেন তো? নতুন এই উপাদান ব্যবহার করে আপনার ত্বককে করতে পারেন আরো সুন্দর ও উজ্জ্বল। কীভাবে কুমড়া ব্যবহার করে ফেসপ্যাক বানাবেন, এ বিষয়ে পরামর্শ দেওয়া হয়েছে বোল্ডস্কাই ওয়েবসাইটের জীবনধারা বিভাগে।

সাধারণ ত্বকের জন্য

একটি পাত্রে আধাকাপ কুমড়া বাটা নিন। সঙ্গে মেশান এক/দুই চা চামচ মধু ও দুধ। এক চিমটি দারুচিনি গুঁড়া দিয়ে সব উপাদান ভালো করে মিশিয়ে নিন। মিশ্রণটি মুখে লাগিয়ে ১৫ মিনিট রেখে কুসুম গরম পানি দিয়ে ধুয়ে নিন।

শুষ্ক ত্বকের জন্য

কুমড়ার কিছু অংশ থেঁতলে এক চা চামচ পরিমাণ নিন। সঙ্গে এক চা চামচ মালাই ও দুই চা চামচ চিনি দিয়ে ভালোভাবে নাড়িয়ে নিন। এই প্যাক আপনার শুষ্ক ত্বককে ভেতর থেকে মসৃণ ও কোমল করতে সাহায্য করবে।

তৈলাক্ত ত্বকের জন্য

এক টেবিল চামচ কুমড়া বাটা ও এক চা চামচ আপেল সিডার ভিনেগার বা লেবুর রস মেশান। ভালো করে মিশিয়ে প্যাকটি মুখে লাগান। ভিনেগার বা লেবুর রস আপনার ত্বকের অতিরিক্ত তৈলাক্ত ভাব দূর করবে।

ব্রণের জন্য

এক চা চামচ কুমড়া বাটা নিয়ে তাতে এক চা চামচ পরিমাণ ডিমের সাদা অংশ দিন। ভালো করে মেশান এবং মিশ্রণটি আপনার মুখ, গলা ও ঘাড়ে লাগিয়ে ২০ মিনিট পর্যন্ত রাখুন। কুসুম গরম পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে নিন।

Share.

Leave A Reply