হালকা নাশতা খেতে মানা?

0

সকাল সকাল নাশতা খাওয়ার পর বেলা একটু গড়ালে কিংবা দিনশেষে বিকাল বা সন্ধ্যার দিকে পেটে টের পাওয়া যায় খিদের সুড়সুড়ি। এই সুড়সুড়ি থামাতে অনেকে চকলেট বা ভাজাপোড়ার আশ্রয় নেন। খেতে মানা নেই, তবে যদি খাওয়া হয় পুষ্টিকর কিছু আমাদের শরীরও ভালো থাকবে আর রোজকার প্রয়োজনীয় পুষ্টির চাহিদাও মিটবে।

কি খাওয়া যায়?

যদি সকালে হাতে সময় না থাকে, তাহলে ব্যাগে ভরে নিন এক টুকরা ফল, এক বাটি দই অথবা এক কৌটা বাদাম আর শুকনো ফল। হুট করে খিদে পেলে চট করে মুখে পুরে দিন।

আর যদি হাতে সময় থাকে কিংবা ছুটির দিনে সারা সপ্তাহের জন্য হালকা নাশতা গুছিয়ে রাখতে পারেন। আগে থেকে বানিয়ে রাখা যায় এরকম কিছু নাশতা কি হতে পারে দেখে নেই চলুন।

গাজরের লম্বা ফালি বা শসার টুকরো সাথে টক দই বা টমেটোর ডিপ।

সবজি, মুরগি আর পাতলা রুটি দিয়ে বানান রোল

ওটের খিচুড়ি

হালকা মশলা মাখানো সবজি সেদ্ধ।

কলার আইসক্রিম

ঝটপট নাশতার কিছু রেসিপিও জেনে নিন চট করে।

কলার আইসক্রিম

উপকরণ

পাকা কলা – ৩ টা

মধু – ১ টেবিল চামচ

টক দই – ১ কাপ

প্রণালী

কলা কেটে ডিপ ফ্রিজে রেখে ঠাণ্ডা করে নিন। কলা আর পানি ঝরানো টক দই ব্লেন্ড করে নিন। পরিবেশন পাত্রে ঢেলে উপরে মধু দিয়ে পরিবেশন করুন।

চিকেন ভেজিটেবল রোল

উপকরণ

আগের দিনের সবজি

আগের দিনের রান্না করা মুরগির মাংস

হাতে বানানো পাতলা রুটি

টমেটো পিউরি

পেঁয়াজ কুঁচি

মরিচ কুঁচি

প্রণালী

পাতলা রুটির উপরে টমেটো পিউরি ঢেলে সবজি এক লাইনে সাজিয়ে নিন। মুরগীর মাংস ছিঁড়ে নিয়ে এর উপরে দিন, পেঁয়াজ কুঁচি আর মরিচ কুঁচি ছড়িয়ে, রোল বানিয়ে হালকা ননস্টিকি ফ্রাইপ্যানে এপিঠ-ওপিঠ শুকনো করে ভেজে নিন। সুস্বাদু ও স্বাস্থ্যকর চিকেন ভেজিটেবল রোল তৈরি।

এভাবে হাতের কাছে গুছিয়ে রাখলে যেমন নিজের হালকা খিদেও স্বাস্থ্যকরভাবে মেটানো যাবে, তেমনি হুট করে মেহমান এসে পড়লেও তাকে কি খাওয়াবেন তা নিয়ে ভাবতে হবে না।

Share.

Leave A Reply