জেনে নিন ‘চিকেন রেজালা’র সব চাইতে পারফেক্ট রেসিপিটি

0
এই গরমে গরু বা খাসি খাওয়াটা বেশ যন্ত্রণাদায়ক, কারণ এগুলো দেহের তাপমাত্রা আরও বেশি বৃদ্ধি করে। কিন্তু মুরগী খেতে তো সমস্যা নেই। কিন্তু একই ধাঁচের মসলা মুরগী আর কতো। আজকে জেনে নিন চিকেন রেজালার একদম পারফেক্ট রেসিপিটি। বদলে নিন মুখের স্বাদ।
 

উপকরণ

– ১ কেজি মুরগীর মাংস
– ৩০০ গ্রাম পেঁয়াজ কুচি
– ৫ চা চামচ আদা-রসুন বাটা
– ১২ টি এলাচ
– ১ চা চামচ মরিচ গুঁড়ো
– আধা কাপ ঘন নারকেলের দুধ (সাধারণ দুধ ঘন হলেও চলবে)
– ১ টেবিল চামচ বাদাম বাটা
– ৫/৬ টি কাঁচা মরিচ
– ২৫০ গ্রাম টকদই
– ৩ টেবিল চামচ ঘি
– ১ চা চামচ ভাঙা মাওয়া
– শুকনো মরিচ (ইচ্ছা)
– আধা চা চামচ কেওড়া জল
– লবণ স্বাদমতো
 

পদ্ধতি

 
– একটি প্যানে মাংস ধুয়ে পানি, লবণ এবং এলাচ দিয়ে সেদ্ধ হতে দিন। মাংস আধা সেদ্ধ হলে এতে দিন কাঁচা মরিচ, পেঁয়াজ বাটা, আদা-রসুন বাটা ও বাদাম বাটা। এরপর পানি শুকিয়ে যাওয়া পর্যন্ত রান্না করতে থাকুন।
– পানি প্রায় শুকিয়ে এলে একটি বাটিতে টকদই, মরিচ গুঁড়ো ও ঘি একসাথে ভালো করে মিশিয়ে ফেটিয়ে নিন এবং প্যানে দিয়ে ভালো করে নেড়ে মিশিয়ে নিন। আবার একটু শুকিয়ে এলে এতে ১ কাপ বা নিজের প্রয়োজন মতো পানি দিয়ে দিন ঘন ঝোল করার জন্য।
– মাঝারি আঁচে দিয়ে খানিকক্ষণ ঝোল ফুটিয়ে নিন। এরপর দিন কেওড়া জল ও মাওয়া। ভালো করে নেড়ে মিশিয়ে নিন। এরপর দিন ঘন দুধ। কিছুক্ষণ চুলায় রেখে ঝোল পছন্দমতো ঘন করে নামিয়ে নিন।
– একটি ফ্রাইং প্যানে সামান্য ঘি দিয়ে এতে শুকনো মরিচ টেলে ঘি সহ শুকনো মরিচ মাংসের উপর ছড়িয়ে দিন এবং ঢাকনা দিয়ে ঢেকে রাখুন ২-৩ মিনিট।
– ব্যস, এবার আপনার ‘চিকেন রেজালা’ তৈরি পরিবেশনের জন্য। কিশমিশ ও বাদাম কুচি ছিটিয়ে পরিবেশন করুন।

নোটঃ খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন

Share.

Leave A Reply