ক্লান্তি দূর করতে ইফতারে ফলের শরবত রইল রেসিপি

0

সারাদিন রোজা রাখার পর নিজেকে অনেক ক্লান্ত লাগে। তাই ইফতার থেকে সেহরির সময় পর্যন্ত কমপক্ষে ২ থেকে আড়াই লিটার পানি পান করুন। তাছাড়া ইফতারে স্বাগত জানাতে পারেন এক গ্লাস ঠান্ডা ফলের শরবত।

তাই ইফতারে রাখতে পারেন ৩ ধরনের শরবত-

বেলের শরবত

উপকরণ

পাকা বেল, চিনি পরিমান মতো, দুধ পাউডার আধা কাপ ও ঠান্ডা পানি।

প্রণালি

প্রথমে বেল ফাটিয়ে নিন। এরপর চামচ দিয়ে ভিতরেরসবটুকু বের করে নিন। এবার সামান্য পানি দিয়ে মাখিয়ে নরম করুন। বেলের আঠা ও বিচি ফেলে ভালোভাবে চটকে চালুনিতে ছেঁকে নিন। লক্ষ রাখবেন বেলের বিচি যেন না থেতলে যায়। বিচি থেতলে গেলে কিছুটা তিতা ভাব আসতে পারে।

এবার ঠান্ডা পানি যোগ করুন।এই পর্যায়ে দুধ পাউডার যোগ করতে পারেন। চিনি যার যেমন ইচ্ছা মিশিয়ে নিন। আর ডায়াবেটিস রোগী হলে, আপনার জন্য নির্ধারিত চিনি ব্যবহার করুন। এবার বরফকুচি বাদে অন্য সব উপকরণ একসঙ্গে ব্লেন্ড করে গ্লাসে ঢেলে বরফকুচি মিশিয়ে ঠান্ডা ঠান্ডা পরিবেশন করুন।

আম দই শরবত

উপকরণ

পাকা আম ৪টা, টক দই আধ লিটার, কাঁচা মরিচ ৮-১০টা, গোল মরিচ গুঁড়ো -১ টেবিল চামচ, বিট লবন পরিমান মতো,১টি লেবুর খোসা কুচি, অর্ধেকটি লেবুর রস, ক্রিম ১ কৌটা বা ১৭০ গ্রাম, চিনি প্রয়োজন মতো।

প্রস্তুত প্রণালি

আমের টুকরোগুলো ব্লেন্ডারে নিয়ে চিনি, লেবুর খোসা,গোল মরিচ গুঁড়ো,বিট লবনসহ ব্লেন্ড করে নিন। তারপর তারের চালুনি দিয়ে চেলে নিয়ে খোসাগুলো ফেলে দিন। একটি বাটিতে দই এবং ক্রিম নিয়ে ভালো করে ফেটে নিন যতক্ষণ পর্যন্ত ঘন না হয়। তারপর দ্রুত আমের মিশ্রণ ঢেলে ভালো করে মিশিয়ে ফেটে নিন। এরপর দুই-তিন ঘণ্টা ফ্রিজে রেখে ইফতারের আগে বের করে গ্লাসে ঢেলে নিন।ওপরে আম কুচি এবং সামান্য লেবুর খোসা কুচি ছিটিয়ে পরিবেশন করুন।

আনারসের শরবত

যা যা লাগবে

আনারসের রস ১ কাপ, সিরাপ ১/৪ কাপ,কমলার রস১ কাপ(আইস ট্রে-তে দিয়ে জমিয়ে বরফ বানিয়ে নিন),লেবুর রস ১ টেবিল চামচ,পুদিনা পাতার রস- ১/২ চা চামচ, চিনি ২ টেবিল চামচ, ঠাণ্ডা পানি ১ কাপ, বিট লবণ আধা চা চামচ, গোল মরিচ গুঁড়া আধা চা চামচ, গারনিশ করার জন্য- কমলার টুকরো, সট্রবেরী, চেরী ইত্যাদি।।

প্রস্তুত প্রণালি

খোসাসহ আনারসটি লম্বালম্বি দুই টুকরা করে চামচ দিয়ে কুরিয়ে নিন। এবার কোরানো আনারসের জুস ভালো করে ছেঁকে নিন। এরপর বিট লবণ, পুদিনার রস, লেবুর রস ও গোলমরিচ মিশিয়ে ব্লেন্ডারে দিয়ে দিন। প্রয়োজনমতো চিনি মেশাতে পারেন। ভালো করে ব্লেন্ড করা হলে ফ্রিজে রেখে দিন ঠাণ্ডা হওয়ার জন্য। ঠাণ্ডা হয়ে গেলে কমলার রস দিয়ে তৈরি আইস কিউব গুলো শরবতের মাঝে দিয়ে দিন। বরফ কুচি দিয়েও পরিবেশন করতে পারেন। কিউবগুলো আস্ত থাকতে থাকতেই পরিবেশ করুন এই শরবত।

ইউটিউবে আমাদের রান্নার সব ভিডিও দেখতে আমাদের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুণ

Share.

Leave A Reply