রুটি বা পরোটার সাথে নিরামিষ তরকারি (ফুলকপি, আলু, বেগুন, টমেটো ও মুগডাল) দিয়ে।

0

পরিমান ও উপকরন

(পরিমান আপনিও অনুমান করতে পারেন)

– কয়েক পদের সব্জি, ৭৫০ গ্রাম হতে পারে (মুল হচ্ছে ফুলকপি, আমরা সেই সাথে নিয়েছি একটা বেগুন, গোটা দুই আলু, দুইটা টমেটো), আপনি আপনার ইচ্ছামত এই জাতীয় সব্জি নিতে পারেন, ব্যাপার না!
– হাফ কাপ মুগের ডাল

– পেঁয়াজ কুঁচি, হাফ কাপের কম
– রসুন বাটা, এক টেবিল চামচ দেশী
– মরিচ গুড়া,  এক চা চামচ (ঝাল বুঝে)
– হলুদ গুড়া, এক চা চামচ
– কয়েকটা এলাচি, ২/৩টা
– কয়েকটা কাঁচা মরিচ, আস্ত ৫/৬টা

– লবন (বুঝে শুনে, পরিমান মত, দুই ধাপে)
– তেল (হাফ কাপ সব মিলিয়ে বা কম)

– ধনিয়া পাতার কুঁচি, একটু বেশী হলেই ভাল যদি আপনি পছন্দ করেন

প্রস্তুত প্রনালী


সব্জি গুলো কেটে ধুয়ে এভাবে রাখুন এবং মুগের ডাল সামান্য ভেঁজে পানিতে ধুয়ে এই সকল সব্জির সাথে রেখে দিতে পারেন। আলাদা রাখলেও দোষ নেই, আমরা ছবি কমাবার স্বার্থে এই ভাবে রেখেছি। এবার মুল রান্নায় চলুন।


কড়াইতে তেল গরম করে তাতে এলাচি, পেঁয়াজ কুঁচি ও সামান্য লবন দিয়ে ভাঁজুন, এর পর একে একে আদা, রসুন বাটা দিয়ে ভাল করে ভেঁজে নিয়ে এক কাপ পানি দিন এবং এর পর মরিচ ও হলুদ দিন এবং তেল উঠা না পর্যন্ত নাড়িয়ে ভাঁজুন। এর মধ্যে কয়েকটা কাঁচা মরিচ দিয়ে দিতে পারেন। আগুন মধ্যম আঁচে থাকবে। কিছুক্ষনের মধ্যেই তেল উঠে যাবে এবং উপরের ছবির মত দেখাবে। (এই রকম ঝোল আমরা আরো অনেক পোষ্টে আরো ডিটেইলস দেখিয়েছি)


এবার সব্জি গুলো ও মুগের ডাল দিয়ে দিন।


ভাল করে মিশিয়ে কয়েক মিনিট রাখুন। আগুন মাধ্যম আঁচে।


এবার এক কাপ পানি দিয়ে দিন, পানি কিছুটা কম দেয়াই ভাল, ঝোল তেমন না চাইলে।


ভাল করে মিশিয়ে এবার ঢাকনা দিয়ে আগুনের আঁচ কমিয়ে মিনিট ১০/১৫ রাখুন। মাঝে উলটে একবার নাড়িয়ে দিতে পারেন তবে সাবধানে, ফুলকপি যেন ভেঙ্গে না যায়।


ঠিক এই অবস্থায় এসে যাবে। শুধু আলু মজলো কিনা দেখুন, আলু নরম হওয়া মানে সব হয়ে গেল।


ফাইন্যাল লবন দেখুন, লাগলে দিন। ঝোল তেমন না রাখতে চাইলে আগুন বাড়িয়ে দিতে পারেন।


এবার ধনিয়া পাতার কুঁচি ছিটিয়ে দিন।


মিশিয়ে নিন, ব্যস! আমি এই সব্জি পরোটার সাথে পছন্দ করি বলে কিছুটা ঝোল রেখেছি, আপনারা চাইলে ঝোল আরো কমিয়ে নিতে পারেন। তবে ফুলকপি যে বেশি না গলে যায় সে দিকেও লক্ষ রাখতে হবে!


এই নিন আপনার প্লেট!


রাতে বা সকালের নাস্তায় এটা একটা স্বাদ এবং পুষ্টিকর খাবার বলে আমি মনে করছি। তবে এটা খেতে মজা পরোটার সাথে, রুটি বা সাদাভাতের সাথে যে চলবে না, তা বলছি না, দৌড়াবেও!

Share.

Leave A Reply