মজাদার ঝুরা মাংসের খিচুড়ি রেসিপি।

0

ঝুরা মাংসের খিচুড়ি

উপকরণ

সাদা ঝুরা মাংস প্রায় দুই কেজি (ঝুরা মাংস তৈরির প্রণালি নিচে দেওয়া হলো),

পোলাওর চাল ৫ কাপ,

মসুর ডাল আধা কাপ,

ভাজা মুগ ডাল আধা কাপ,

ভাজা মাষকলাইয়ের ডাল আধা কাপ,

বুটের (ছোলার) ডাল আধা কাপ,

অ্যাঙ্কর ডাল আধা কাপ,

কাঁচা মরিচ ১০টি,

তেজপাতা ২টি,

দারুচিনি (২ সেন্টিমিটার) ৩টি,

এলাচি ২টি, লবঙ্গ ২টি,

পেঁয়াজ টুকরা (মাঝারি) ১০টি,

ঘি/তেল আধা কাপ,

আদাবাটা ১ টেবিল চামচ,

রসুনবাটা ২ টেবিল চামচ,

ভাজা জিরার গুঁড়া ১ টেবিল চামচ,

ধনে গুঁড়া ১ টেবিল চামচ,

লবণ দেড় টেবিল চামচ (স্বাদমতো)।

ফুটানো পানি ২৮ কাপ।

প্রণালি

চাল ঝেড়ে, বেছে, ধুয়ে নিন। সব ধরনের ডাল একত্রে মিশিয়ে ধুয়ে নিয়ে পাঁচ-ছয় ঘণ্টা পানিতে ভিজিয়ে রাখুন। তারপর ভালো করে ধুয়ে পানি ঝরিয়ে নিন। হাঁড়িতে তেল/ঘি গরম করে পেঁয়াজ সোনালি করে ভেজে অর্ধেক পেঁয়াজ উঠিয়ে রাখুন। বাকি পেঁয়াজ গোটা গরম মসলা ও তেজপাতার ফোড়ন দিয়ে সব বাটা ও গুঁড়া মসলা দিয়ে একটু পানি দিয়ে কষিয়ে চাল ও ডাল দিয়ে পাঁচ-সাত মিনিট ভাজুন। তারপর লবণ দিয়ে নেড়ে পানি (ফুটানো গরম পানি) ও কাঁচা মরিচ দিয়ে নাড়ুন। কয়েকবার ফুটে উঠলে ঝুরা মাংস দিয়ে নেড়ে মাঝারি আঁচে ঢেকে দিন। খেয়াল রাখতে হবে নিচে যেন পোড়া না লাগে। চাল ও ডাল সেদ্ধ হয়ে খিচুড়ি মাখা মাখা হলে ২ টেবিল চামচ ঘি ছিটিয়ে ১০ মিনিট দমে রেখে চুলা বন্ধ করে দিন। সার্ভিং ডিশে বেড়ে বেরেস্তা ছিটিয়ে বিফ রোস্ট অথবা ঝাল বিফকারি ও সালাদ দিয়ে গরম-গরম পরিবেশন করুন।

ঝুরা মাংস তৈরি

উপকরণ

গরুর মাংস আড়াই কেজি, পেঁয়াজ টুকরা ২৫০ গ্রাম, আদাবাটা সিকি কাপ, রসুনবাটা ১ টেবিল চামচ, তেজপাতা ২টি, এলাচি ৫টি, দারুচিনি ২ সেন্টিমিটার করে ৬ টুকরা, তেল সোয়া কাপ, লবণ স্বাদ অনুযায়ী।

প্রণালি

মাংস বড় বড় টুকরা (২৫০ গ্রাম ওজনের) করে কাটতে হবে। তেল গরম করে পেঁয়াজ ছেড়ে দিন। হালকা বাদামি রং করে ভাজুন। মাংস, আদা, রসুন, তেজপাতা ও লবণ দিতে হবে। মাঝে মাঝে নেড়ে মাংস জ্বাল দিন। ভালোভাবে জ্বাল হলে (মাংস থেকে পানি বের হবে, কিন্তু মাংস নরম হবে না) মাংস চুলা থেকে নামাতে হবে। গরমের দিনে প্রতিদিন এবং শীতের দিনে এক দিন (রেফ্রিজারেটরে রাখলে সাত দিন) পর মাংস ফুটিয়ে রাখতে হবে। মাংস আধা সেদ্ধ হলে গরম মসলা দেবেন।

ঝুরা মাংস: রান্না করা মাংস অল্প আঁচে রাখলে পানি শুকিয়ে তেলের ওপর উঠে ভেঙে ঝুরা হবে। ঝুরা মাংস রেফ্রিজারেটরে এক থেকে দুই মাস পর্যন্ত রাখা যায়।

Share.

Leave A Reply