চুলায় তৈরি করুন সুস্বাদু নানরুটি

0

খাবার সময় একটু ভিন্ন স্বাদ পেতে কার না মন চায় বলুন। শীতের রাতে গরম গরম সবজি বা মাংসের তরকারির সাথে রুটি পরোটা খাওয়ার অভ্যাস অনেকেরই রয়েছে। বিশেষ করে নানরুটি হলে তো কথাই নেই। এছাড়াও রাতে বাসায় বার-বি-কিউ করা হলে এর সাথেও খাওয়া হয় নানরুটি। বাইরে রেস্টুরেন্টে খেতে গেলে কাবাব আইটেমের সাথে সকলেই নানরুটি অর্ডার দিয়ে থাকেন। কিন্তু কেমন হয় যদি ঘরেই সুস্বাদু নানরুটি তৈরি করে ফেলা যায়? চলুন তবে আজকে শিখে নিই ঘরে স্পেশাল নানরুটি তৈরির সবচাইতে সহজ পদ্ধতিটি।

 উপকরণ

  • ময়দা ৩ কাপ
  • গমের আটা ১ কাপ
  • বেকিং সোডা ১ চা চামচ
  • বেকিং পাউডার দেড় চা চামচ
  • চিনি ১ টেবিল চামচ
  • ইস্ট ৩/৪ চা চামচ
  • দুধ ১/৪ কাপ
  • দই ১ কাপ
  • ঘি (ব্রাশ করার জন্য)
  • টপিং এর জন্য রসুন, বাদাম বা চীজ (ইচ্ছা)

প্রণালী 

– ইস্ট, চিনি ও সামান্য হালকা গরম পানি একসাথে মিশিয়ে ৫-১০ মিনিট আলাদা করে রাখুন। এরমাঝে আটা, ময়দা, বেকিং পাউডার ও বেকিং সোডা একসাথে মিশিয়ে নিয়ে মাঝে একটু গোল জায়গা করে রাখুন।

– দুধ এবং দই একসাথে ভালো করে মিশিয়ে নিন। ইস্টের মিশ্রণ একটু ফোম ধরণের হয়ে এলে তা দই ও দুধের মিশ্রণে দিয়ে ভালো করে মিশিয়ে নিন এবং তা ময়দার মিশ্রণে গোল করে রাখা স্থানে ঢেলে দিন।

– এবার রুটি বেলার মতো করে ভালো করে মিশিয়ে নরম ডো তৈরি করে ফেলুন। এরপরএকটি বাটিতে তেল/ঘি দিয়ে ব্রাশ করে নিয়ে ডোটি রেখে একটি পাতলা প্লাস্টিক দিয়ে বাটিটি
ঢেকে একটু গরম জায়গায় রেখে দিন।

– ডো ফুলে দ্বিগুণ হয়ে গেলে বুঝবেন তা রুটির জন্য তৈরি হয়ে গিয়েছে। ডো দ্বিগুণ হতে প্রায় ৩০-৪৫ মিনিট সময় নেবে। এরপর ডো টি আবার একটু মথে নিয়ে ১৬ টি ভাগে ভাগ করে
নিন।

– এবার একটি বেলন দিয়ে প্রতিটি ভাগের ডো ভালো করে বেলে নিন। পুরো গোল নয় একটু ডিম্বাকৃতি করে ৬ ইঞ্চি পরিমাণে বেলে নিন যার পুরুত্ব ১/৮ ইঞ্চি রাখার চেষ্টা করবেন।

– এবার একটি লোহার তাওয়া চুলায় দিয়ে মাঝারি আঁচে গরম করে নিন। তাওয়া ভালোমতো গরম হয়ে এলে বেলে রাখা রুটির দুইপাশ বাটার/ঘি দিয়ে ব্রাশ করে নিন।

– যদি সাধারন নানরুটি চান তবে এভাবেই তাওয়ায় দিয়ে দিন। আর যদি স্পেশাল কোনো স্বাদ চান তবে টপিংয়ে যা দিতে চান তা রুটির একপাশে একটু চাপ দিয়ে রুটির ভেতরে আটকিয়ে তাওয়ায় দিয়ে দিন।

– তাওয়ার উপর ১ মিনিট রেখে দিন অথবা একটু ফুলে উঠা পর্যন্ত অপেক্ষা করতে থাকুন। একপাশ হয়ে গেলে ওপরে আরেকটু ঘি/বাটার ব্রাশ করে উল্টে অপর পাশ ভেজে নিন।

– এভাবে সব রুটি ভালো করে ভেজে নিন। ব্যস, এবার গরম গরম কাবাব, মাংস ও সবজির তরকারির সাথে মজা নিন সুস্বাদু নানরুটির।

Share.

Leave A Reply