মাটন মিটবল স্যুপ রেসিপি।

0
গত কিছুদিন ধরে শীতটা একটু কমতির দিকে। কিন্তু তারপরেও সন্ধ্যার দিকে হিমেল হাওয়ায় কাঁপুনি আসে ঠিকই। এ সময়ে কি খাওয়া যায় বলুন তো? হ্যাঁ, সবচাইতে ভালো লাগবে ধোঁয়া ওঠা এক বাটি স্যুপ। আর তাতে যদি ভাসতে থাকে কয়েকটা মিটবল, তাহলে তো আরও ভালো! শীত যাবার সাথে সাথে উদরপূর্তিও হবে নিশ্চিন্তে। চলুন, দেখে নেওয়া যাক রেসিপিটি।

উপকরণ

মিটবলের জন্য

–   ১ পাউন্ড খাসির মাংসের কিমা
–   ৩টি কাঁচামরিচ
–   ৪ কোয়া রসুন, মিহি কুচি
–   ২ ইঞ্চি আদা, মিহি কুচি
–   ২ টেবিল চামচ ধনেপাতা মিহি কুচি
–   আধা চা চামচ গোলমরিচ গুঁড়ো
–   আধা চা চামচ লবণ
–   ১ চা চামচ ভেজিটেবল অয়েল
–   ১টা মাঝারি ডিম

স্যুপের জন্য

–   দেড় টেবিল চামচ তেল
–   সিকি কাপ পিঁয়াজ বাটা
–   ১ টেবিল চামচ আদা রসুন বাটা
–   এক ইঞ্চি পরিমাণ দারুচিনি
–   ১টা তেজপাতা
–   ২য়া লবঙ্গ
–   আধা চা চামচ গোলমরিচ
–   ১ চা চামচ ধনিয়া
–   সিকি চা চামচ জিরা
–   পৌনে এক চা চামচ কাশ্মিরি মরিচ পাউডার অথবা পাপরিকা
–   ২ মাঝারি টমেটো, ব্লেন্ডারে পিউরি করা
–   ৩ টেবিল চামচ ঘন দই
–   ৪ কাপ পানি
–   লবণ স্বাদমতো
–   গার্নিশ করার জন্য ধনেপাতা এবং লেবুর রস (ইচ্ছা)

প্রণালী

১) একটা বোলে মিটবলের সব উপকরণ নিন। হাতে মাখিয়ে নিন ভালো করে। এরপর হাতে অল্প করে তেল মেখে এটাকে ছোট ছোট মিটবলের আকৃতি দিন। এগুলোকে একটা প্লেট অথবা ট্রেতে রেখে প্লাস্টিক শিট বা ক্লিং ফিল্ম দিয়ে ঢেকে ফ্রিজে রেখে দিন। এরপর স্যুপ তৈরি করা শুরু করুন।

২) হামানদিস্তায় গুঁড়ো করে নিন গোলমরিচ, লবঙ্গ, ধনে এবং জিরা। একটা বড় প্যান গরম করে নিন মাঝারি আঁচে। এরপর তেল দিন। তেল থেকে ধোঁয়া উঠতে শুরু করলে এতে দিয়ে দিন দারুচিনি এবং তেজপাতা। ১০ সেকেন্ড পর এতে দিয়ে দিন পিঁয়াজ, আদা-রসুনের পেস্ট এবং আঁচ কমিয়ে দিন। মশলা ভুনে নিন যাতে রঙ পরিবর্তন হয়ে যায়। ৫-৭ মিনিটের মাঝে হয়ে যাবে এবং মশলা থেকে সুন্দর গন্ধ আসবে।
৩) আঁচ কম রেখেই এতে দিয়ে দিন গুঁড়ো করা মশলা, টমেটো পিউরি, দই এবং লবণ। সবকিছু নেড়ে মিশিয়ে নিন। ৮-১০ মিনিট রান্না করুন। তেল ওপরে উঠে এলে পানি দিয়ে দিন। স্যুপ চেখে দেখুন লবণ ঠিক আছে কিনা। মাঝারি আঁচে এটাকে ফুটিয়ে নিন।
৪) স্যুপ ফুটতে শুরু করলে আবার আঁচ কমিয়ে দিন। এরপর ফ্রিজ থেকে মিটবল বের করে স্যুপে দিয়ে দিন। ওপরে ঢাকনা দিয়ে রান্না হতে দিন ১০-১২ মিনিট।
রান্না হয়ে গেলে ঢাকনা চাপা দিয়ে রেখে দিন দেড় থেকে দুই ঘন্টা। খাবার সময়ে আরেকবার কম আঁচে গরম করে নিন। তেজপাতা এবং দারুচিনি বের করে ফেলে দিন। ওপরে ধনেপাতা কুচি এবং একটু লেবুর রস চিপে দিয়ে পরিবেশন করুন।
শুনে মনে হতে পারে এই স্যুপ রান্নায় অনেক বেশি সময় লাগছে। কিন্তু এটা আগে থেকে তৈরি করে রাখা যায়, ফলে দরকারের সময়ে আসলে শুধু গরম করে নিলেই হয়।

টিপস

–   শুধু খাসির মাংস নয়, এটা তৈরি করতে পারেন চিকেন কিমা দিয়েও। চিকেন কিমা রান্না করতে সময় আরো কম লাগবে।
–   রুটির সাথে পরিবেশন করলে এই স্যুপ আপনি ব্রেকফাস্ট হিসেবেও খেতে পারেন।

Share.

Leave A Reply