ঠান্ডাজ্বরে ক্যাপসিকামের স্যুপ রেসিপি।

0

বছরের এই সময়টাতে ঠান্ডাজ্বর বেশি হয়। এই জ্বরের কারণে কিছুই খেতে মন চায় না। এ সময় মুখের স্বাদ ফিরিয়ে আনতে ক্যাপসিকামের স্যুপ খেতে পারেন। ভিন্ন স্বাদের এই স্যুপ বেশ স্বাস্থ্যসম্মত। বাসায় বসে খুব সহজে তৈরি করতে জেনে নিন, কী কী উপকরণ লাগবে এই রেসিপিতে এবং কীভাবে তৈরি করবেন এই স্যুপ।

উপকরণ

ক্যাপসিকাম দুটি, তেল এক টেবিল চামচ, টমেটো চারটি, রসুন এক কোয়া, তেজপাতা দুটি, পানি তিন কাপ, লো ফ্যাট দুধ আধা কাপ, কর্নফ্লাওয়ার দেড় টেবিল চামচ, চিনি সামান্য, গোলমরিচের গুঁড়া সামান্য ও লবণ স্বাদমতো।

প্রস্তুত প্রণালি

প্রথমে ক্যাপসিকাম ভালো করে ধুয়ে ব্রাশ দিয়ে এর ওপর তেল লাগান। এবার কাঁটাচামচ দিয়ে ক্যাপসিকামটি ধরে চুলার আগুনে সেঁকে নিন। বাইরের দিকটা পুড়ে কালো হওয়ার পর ক্যাপসিকাম দুটি একটি বাটিতে নিন। বাটির মধ্যে পানি দিন। হাত দিতে ক্যাপসিকামের পুড়ে যাওয়া অংশ তুলে ফেলুন। এবার চপিং বোর্ডের ওপর নিয়ে ছুরি দিয়ে ক্যাপসিকাম কেটে নিন। কুচি করার দরকার নেই। কারণ, এটি ব্লেন্ড করা হবে। আর বিচি ফেলতে ভুলবেন না। এবার একটি প্যানে তেল দিয়ে তাতে পাকা টমেটো ও রসুন দিন।

এখন তেজপাতা, পানি ও টুকরো করা ক্যাপসিকাম দিয়ে নাড়তে থাকুন। ফুটতে শুরু করলে চুলা থেকে নামিয়ে রুমের তাপমাত্রায় ঠান্ডা করুন। ঠান্ডা হয়ে গেলে মিশ্রণটি একটি ব্লেন্ডারে নিয়ে ভালো করে ব্লেন্ড করুন। আবার একটি প্যানে ব্লেন্ড করা মিশ্রণ দিয়ে কিছুক্ষণ নাড়তে থাকুন। একটি কাপের মধ্যে দুধ ও কর্নফ্লাওয়ার মিশিয়ে ক্যাপসিকামের মিশ্রণে দিন। সবশেষে চিনি ও লবণ দিয়ে নেড়ে ঘন হয়ে এলে চুলা থেকে নামিয়ে বাটিতে ঢেলে নিন। ওপরে সামান্য গোলমরিচের গুঁড়া ছিটিয়ে গরম গরম পরিবেশন করুন স্বাস্থ্যকর ক্যাপসিকামের স্যুপ।

Share.

Leave A Reply