এ্যারাবিয়ান ডেসার্ট কুনাফা তৈরির সহজ রেসিপি

0

বিভিন্ন অনুষ্ঠানে বা ঈদের সকালে মিস্টি কিছু থাকা চাই। নরমাল সেমাই পায়েস রান্না খুবই কমন। কিন্তু কুনাফা একটি ভিন্নধর্মী মিষ্টান্ন এবং স্বাদেও চমৎকার। আমার বাসার সবারই খুব পছন্দ এই ডেসার্ট। এটি অনেকেই অনেক ভাবে বানায়,কিন্তু আমি সব সময়ের মতো এবারেও শর্টকাট কুনাফা বানানোর রেসিপি নিয়ে এসেছি। শর্টকাটে বানানো হলেই স্বাদের কিন্তু একই রকম মজাদা। তাহলে আর দেরি করে লাভ কি? আসুন জেনে নেই এই মজাদার আরবের খাবারের রেসিপি।

যা যা লাগবে

লাচ্ছা সেমাই ১ প্যাকেট

বাটার ১০০ গ্রাম বা ঘি ২ টেবিল চামচ

চিনি পরিমাণ মত ( কনডেন্সড মিল্ক বেশি দিলে চিনি কম লাগবে)

কনডেন্সড মিল্ক ১ কৌটা

খেজুর কুচি

কিশমিশ ৭/৮ টা

বাদাম কুচি

চালের গুড়া ১ চামচ বা কর্ণফ্লাওয়ার পরিমাণ মত

দুধ ৫০০ গ্রাম

যেভাবে প্রস্তুত করবেন কুনাফা

একটি ননস্টিকি প্যানে ঘি দিন। এক প্যাকেট লাচ্ছা সেমাই হাত দিয়ে গুড়া করে ঘি তে দিয়ে দিন।হালকা আচে নেড়ে নেড়ে সেমাই বাদামি করুন। এর সাথে কিশমিশ, খেজুর কুচি, বাদাম দিন।

এবার হোমমেড অথবা বাজারের কনডেন্স মিল্ক পরিমান মতো দিন এবং প্রয়োজন হলে চিনি দিয়ে নেড়ে একটি পাত্রে তুলে রাখুন।সেমাই দুই ভাগ করে রাখুন।

250 মিলি দুধ জ্বাল দিয়ে ঘনকরে তাতে এক চা চামচ চালের গুঁড়ো পানিতে গুলিয়ে অথবা কর্ণফ্লাওয়ার গুলিয়ে দিন, ঘন থকথকে হয়ে এলে নামিয়ে নিন।

এবার মোল্ডে তেল ব্রাশ করে একভাগ সেমাই চেপে বসাবেন তারপর ক্ষিরটা দিয়ে আবার বাকি সেমাইটা চেপে বসিয়ে দিবেন। এবার ফ্রিজে এক/দুই ঘন্টা চিল হতে দিবেন।

দুই ঘন্টা পরে নামিয়ে যেকোনো ছড়ানো প্লেটে উল্টো করে ধরলে পুডিংর মতো পড়ে যাবে। এবার পছন্দমত শেপে কেটে পরিবেশন করুন মজাদার কুনাফা।

টিপস

কুনাফা তৈরিতে আমি চালের গুড়া ব্যবহার করি। কিন্তু এতে ক্রীম চিজ ও আনফ্লেভারড জেলাটিনের সাথে কনডেন্সড মিল্ক মিক্স করে বিটারের সাহায্যে বিট করে দেওয়া হয়। এক্ষেত্রে লাচ্চা সেমাইতে কনডেন্সড মিল্ক দেওয়া হয়না। আমি জেলাটিনটা এ্যাভয়েড করি যেহেতু বাজারে হারাম জেলাটিনও পাওয়া যায় যা শুকরের থেকে তৈরি হয়। হালাল জেলাটিন পেলে আপনি ব্যবহার করতে পারেন।

Share.

Leave A Reply