ফুলঝুরি বা ছাঁচপিঠা রেসিপি

0

নাস্তায় অন্যরকম আয়োজন।

উপকরণ

 ডিম ১টি। চালের গুঁড়া দেড় কাপ। ময়দা ২ টেবিল-চামচ। চিনি আধা কাপ বা স্বাদ মতো। লবণ ১ চিমটি। পিঠার ছাঁচ ১টি(বাজারে পাবেন)। হালকা গরম পানি পরিমাণ মতো। তেল ভাজার জন্য পরিমাণ মতো।

পদ্ধতি

ডিম ফেটিয়ে নিন। তারপর ডিম, ময়দা, চালের গুঁড়া, লবণ, চিনি ও গরম পানি দিয়ে মেখে রেখে দিন এক ঘণ্টার জন্য। মিশ্রণটি বেশি পাতলা বা ঘন হবে না।

কড়ইতে বেশি করে তেল নিন যাতে ডুবো ভাবে ভাজা যায়। তেল গরম হলে, ফুলঝুরি পিঠার ছাঁচ তেলে ডুবিয়ে রেখে তুলে ফেলুন।

এবার গরম ছাঁচটি গোলার মধ্যে ছাঁচের অর্ধেকের বেশি ডুবিয়ে নিয়ে আবার তেলের কড়াইয়ে দিয়ে ঝাঁকাতে হবে যতক্ষণ না ছাঁচ থেকে পিঠা ছুটে না আসে।

এভাবে একটা পিঠা হতে হতে পুনরায় ছাঁচটি গরম তেলে ডুবিয়ে রাখতে হবে ও আগের নিয়ম অনুযায়ী করতে হবে। পিঠা এপিঠ ওপিঠ হালকা বাদামি করে ভেজে তুলে ফেলতে হবে।

পিঠা তোলার সময় নরম থাকলে কোনো সমস্যা নেই। কারণ যত ঠাণ্ডা হবে তত মচমচে হবে। সবপিঠা ভালো করে ঠাণ্ডা হলে বয়ামে ভরে অনেকদিন রেখে খাওয়া যাবে।

মনে রাখবেন

গরম তেলে, চুলায় আঁচ থাকা অবস্থায় ছাঁচটি ভালো ভাবে গরম করে নিতে হবে। না হলে পিঠা হবে না। গরম ছাঁচটি গোলার মধ্যে ছাঁচের অর্ধেকের বেশি ডুবিয়ে নিতে হবে। তবে মনে রাখবেন গোলার মধ্যে ছাঁচের সম্পূর্ণ ডুবিয়ে দিলে পিঠা ছাঁচ থেকে বের হবে না। হালকা বাদামি হলেই তুলে ফেলতে হবে। বেশি ভাজলে পুড়ে যাবে। আর চুলার আঁচ বেশি দেওয়া যাবে না। পিঠা ভাজার সময় যদি তেল বেশি গরম হয়ে যায় তাহলে চুলা থেকে কড়াইটা নামিয়ে পিঠা ঝাঁকাবেন। পিঠা ছাঁচ থেকে খুলে গেলে আবার কড়াইটা চুলায় বসিয়ে দেবেন।

Share.

Leave A Reply